আকর্ষণ বাড়াতে গাছকে গ্রেপ্তার করে বিতর্কে জড়ালেন এক পর্যটন ব্যবসায়ী

#মালবাজার: ব্যবসার আকর্ষণ বাড়াতে একটা টুন গাছকে গ্রেপ্তার করে বিতর্কে জড়ালেন ডুয়ার্সের এক পর্যটন ব্যবসায়ী।শনিবার  ঘটনাটি ঘটেছে ডুয়ার্সের ডায়না পারের সান সিটি পর্যটন কেন্দ্রে। মানুষ অপরাধ করলে তাকে গ্রেপ্তার করার ক্ষমতা পুলিশের আছে।কিন্তু,গাছের অপরাধের জন্য তাকে লোহার বেড়ি লাগিয়ে রীতিমতো গ্রেপ্তার করে প্রায় নজির বিহীন কাজ কান্ড ঘটিয়েছেন ডুয়ার্সের পর্যটন ব্যবসায়ী শেখ জিয়াউর রহমান।
গাছের অপরাধ অন্য এক গাছকে মেরে তার জায়গা দখল করে পল্লবিত হয়েছে। গাছকে এভাবে গ্রেপ্তার করা যায় কি না?  সে-নিয়ে বিতর্কে জরালেন রহমান সাহেব। যদিও এনিয়ে নিজের বক্তব্যে রহমান সাহেব জানান, এটা প্রথম নয়, আজ থেকে ১২০ বছর আগে এক ইংরেজ সাহেব এক বট গাছকে গ্রেপ্তার করেছিলেন। কয়েদ করা সেই আজও পাকিস্তানে রয়েছে।একজন মানুষ যদি অপরাধ করে তবে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তেমন গাছ যদি অন্য গাছকে হত্যা করে নিজে বিকশিত হয় সেটা তার অপরাধ।
এজন্য গাছকে ১০০ বছরের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আগামী ১০০ বছর গাছটিকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। এভাবেই গাছকে রক্ষা করতে হবে। মানুষ তার ইতিহাস জানবে। জানাগেছে সান সিটির কর্নধার রহমান সাহেব তার পর্যটন কেন্দ্রের আকর্ষণ বাড়াতে এই কাজ করেছেন। এইরকম উল্টো বাড়ি সহ নানান আজব কান্ডের স্থান এই পর্যটন কেন্দ্র।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা