News Britant

Saturday, September 24, 2022

মহালয়ার দিন অন্তর্জালে ও ছোট্ট ছোট্ট ভাবনায় আগমনী উৎসব নিয়ে মেতে রইলো লেখক, শিল্পী ও কলাকুশলীরা

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#ইসলামপুর: স্তোত্র পাঠেই শুরু হলো “জাগো দুর্গা” শীর্ষক মহালয়ার প্রভাতী অনুষ্ঠান। আয়োজক ইসলামপুরের শ্রুতি মঞ্জিল নামে একটি বাচিক শিল্পের সংস্থা। উদ্বোধনী পর্বে সুরে সুরে আগমনী পর্বের অভিষেক ঘটলো সুচেতা চক্রবর্তীর কণ্ঠে। এর পর অর্পিতা দত্ত ও সম্পা শেঠের কথা ও কবিতায় এক অনন্য শব্দ কোলাজ বেশ নান্দনিক।অগ্নিশিখা নাট্য সংস্থার সদস্য গৌতমী সাহু, মনোজ হালদার, মিলি তালুকদার, উজ্জ্বল দত্ত ও উত্তম সরকারদের সম্মিলিত প্রয়াসে ছিল দুটি নাট্যাংশ এর নিবেদন। সত্যি যেন লাজবাব।

স্বরূপানন্দ বৈদ্য, অসিত পাল, শৌভিক চক্রবর্তী, দেবাশীষ চক্রবর্তী এবং জলি বোস শোনালেন আগমনীর বার্তা। মিঠুন দত্ত ও মৌসুমী নন্দীর স্বরচিত কবিতা বেশ সুন্দর। শেষ পর্বে সুশান্ত নন্দীর রবি ঠাকুরের বিষয় ভিত্তিক গানের সাথে আইভি বিশ্বাসের একক নৃত্যে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি। বিগত বেশ কয়েক বছরের মতন মহালয়ার সকালে জমজমাট উৎসবের সূচনা এবার কিন্তু তেমন ভাবে হলোনা এবার। করোনা আবহে পাল্টে গেল সে সব। মহালয়ার দিন সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্গোৎসব এর ঘোষণা হলো বেশ কয়েকটি ক্লাবে।

ইসলামপুরের দেশবন্ধূপাড়া আদর্শ সংঘের সদস্যরা এবার ছোট্ট ভাবনায় মহালয়ার আবহকে সঙ্গে নিয়ে শহর পরিক্রমায় অংশ নিলেন। ক্লাবের মহিলা ব্রিগেডের সম্পাদক চৈতালি পাল দেবনাথ জানান, তারা দু’বছর ধরে জমজমাট ভাবে প্রভাত ফেরী করে আসলেও এবার এই সংকটের মুহূর্তে জাতীয় সড়ক ছুঁয়ে বাস টার্মিনাস হয়ে তারা বাড়ি ফিরে এসেছেন এবং এই উদ্যোগ ছিল কিছু মানুষকে নিয়ে। সবাইকে শামিল করা যায়নি।  অন্য দিকে ইসলামপুরের আরো একটি বড় পুজো কমিটি নেতাজিপল্লী ব্লক পাড়া দুর্গাপূজা কমিটি। তারাও পাড়ার মধ্যেই ছোট্ট পরিসরে আয়োজন করলেন মহালয়া উপলক্ষে একটি ছোট্ট শোভাযাত্রার।

পুজো কমিটির সম্পাদক বিজয় দাস জানান, এবছর করোনার জন্য সবকিছুই তাদের ছোট্ট ভাবনার প্রতিফলন।এলাকার মানুষজনের যাতে মন খারাপ না হয় তাই স্বল্প পরিসরে মাক্স পড়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে পাড়াতে তারা শোভাযাত্রার আয়োজন করেছেন। অন্যান্য বছরের মতো আর অন্য কোন কর্মসূচি ছিল না এবার। এই সংকটের মুহূর্তে মঞ্চ নয় বরং অন্তর্জালের দর্শকদেরই বেছে নিলইসলামপুর কালচারাল সোসাইটির সদস্যরা। এদিন অন্তর্জালে তারা আগমনী পর্বকে সাজিয়ে তোলেন নান্দনিকভাবে।

ইসলামপুর কালচারাল সোসাইটির সম্পাদক সঞ্জীব বাগচী জানান, প্রতি বৎসর একদিকে চণ্ডীপাঠ আর অন্যদিকে তাদের আয়োজনে যেভাবে উৎসবমুখর হয়ে উঠত এলাকা এবার আর সেভাবে সম্ভব হয়ে ওঠেনি। তাই অন্তর্জালে তারা নতুন ভাবনা নিয়ে উপস্থিত হয়েছেন। ইসলামপুর কালচারাল সোসাইটি “মহিষাশুরমর্দিনী” কে সামনে রেখে “নবদুর্গা” নিয়ে তাদের ভাবনার পরিস্ফুটন ঘটিয়েছেন তাদের আঙ্গিকে। দুর্গা ও অসুরের ভূমিকায় সকলের নজর কেড়েছেন যথাক্রমে দেবশ্রী সাহা ও বিশ্বরূপ বিশ্বাসরা।তবে অভিনয়ের ছাপ রেখে গেছেন আরও অনেকেই।

পাশাপাশি মহালয়া উপলক্ষে  আমরা ক’ জন নামে একটি সাংস্কৃতিক সংস্থা অনলাইনে প্রকাশিত করলো স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি “রূপান্তর”। ছবির মূল বিষয়, সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর পুরুষ যখন অসুর রূপে মহিলাদের ওপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করে, তখন নারীদেরও দূর্গার রূপ থেকে রূপান্তর ঘটে কালীতে। আভিনয়ে বেশ স্বতঃস্ফূর্ত ছিলেন সূর্যসারথি সরকার, অসীম সিংহ,উদয় দাস, কৌশিক ভৌমিক, মামন সরকার, স্মৃতিকনা রায়, সুতনু দাস, শিলন্ধ্রা পাল, ঐশানি, আরাধ্যা এবং অসিত পাল ও আইভি বিশ্বাস। এডিটে কাঞ্চন দাস, ভিডিও নির্মাণে মণীশ রায় এবং নির্দেশনায় আইভি বিশ্বাস।

 

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment