News Britant

Saturday, September 24, 2022

শাস্তি দেওয়ার নামে নাবালকের ওপর মধ্যযুগীয় অত্যাচার তৃণমূল নেতার, দেখুন ভিডিও

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

রায়গঞ্জ : স্বাধীনতা দিবসে ভয়ঙ্কর ও অমানবিক ভিডিও ভাইরাল হতেই চোখ কপালে নেটিজেনদের। কি দেখা যাচ্ছে ভিডিওতে? এক ১৪ বছরের নাবালককে দোকানের খুঁটিতে বেঁধে চাবুক দিয়ে মনের ঝাল মেটাচ্ছে এক বয়স্ক ব্যক্তি। কে এই বয়স্ক ব্যক্তি? তিনি আর কেউ নন, করণদিঘির লাহুতাড়া ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের দুর্লভপুর এলাকার ডাকসাইটে নেতা তথা স্থানীয় তৃণমূল গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যা এলেনুর খাতুন এর স্বামী ফজলুর রহমান।

এলাকাবাসীর তোলা সেই ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পরতেই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলা জুড়ে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ওই ছেলেকে একটি দোকানের পোলের সাথে বেঁধে চাবুক মারছে ওই ব্যক্তি। আর এই মধ্যযুগীয় শাসনকে দলবদ্ধ ভাবে উপভোগ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ।

ফজলুর রহমান আমাদের প্রতিনিধিকে ফোনে জানান, ওই নাবালক দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় নানারকম অসামাজিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলো। এদিন পাড়ার মুদিখানা দোকানে দিনের বেলায় মালিকের অনুপস্থিতিতে চুড়ি করতে ঢুকে হাতেনাতে ধরা পড়ে সে।  ওই নাবালকের বাবার অনুরোধে নাবালককে শিক্ষা দিতেই তিনি এই কাজটি করে ফেলেছেন।

যদিও গোটা ব্যাপারটা নাবালকের বাবার ওপর চাপিয়ে দিয়ে তিনি জানান মারধোরের সময়ে তার জানা ছিলনা অভিযুক্ত কিশোর আসলে একজন নাবালক। তার বাবার অনুরোধেই শিক্ষা দিতে এই কাজ করে আসলেই অনুতপ্ত তিনি। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে ওই নাবালকের বয়স ১৩-১৪ বছর। বাড়ি করনদিঘির দুর্লভপুর এলাকায়।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment