News Britant

Friday, January 27, 2023

সাত মাসে অসম্পূর্ণ শিশুর ভূমিষ্ঠ, চিকিৎসকের চেষ্টায় সুস্থ শিশু

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#ইসলামপুর: অনেক প্রশ্ন চিহ্ন এবং কিন্তু নিয়েই নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই স্বাভাবিকভাবেই জন্ম নিল এক সদ্যোজাত। জন্ম নিয়েই নানান প্রতিবন্ধকতার সঙ্গে শুরু হলো লড়াই। চলছে এখনও। এমনই ছবি ধরা পড়েছে ইসলামপুরের একটি নার্সিংহোমে। মাত্র সাত মাসের গর্ভাবস্থায় স্থানীয় রামকৃষ্ণ পল্লীর মমতা নার্সিংহোমে জন্ম নেয় এক শিশু। যে শিশুর শারীরিক বিকাশ এখনো অসম্পূর্ণ অর্থাৎ শরীরের সমস্ত অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ এখনো ঠিক ভাবে তৈরিই হয়নি। তবুও বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না থাকায় প্রসব করাতে বাধ্য হয়েছে চিকিৎসক।

তবে চিকিৎসকের চিকিৎসা ও পরামর্শ অনুযায়ী ওই শিশু এখন অনেকটাই সুস্থ। যদিও চলবে ধারাবাহিক চিকিৎসা। ওই শিশুর হার্টে রয়েছে ফুটো,ঠোঁট ও তালুর গঠনই হয়নি। ওজন মাত্র এক কেজি চারশ গ্রাম। নাক দিয়ে ওই শিশুকে দুধ খাওয়াতে হচ্ছে। চোখের আকারও অনেকটাই বড়। এমনই প্রতিবন্ধকতা সঙ্গে যুদ্ধ করে বেঁচে রয়েছে ওই শিশু। আদৌ আর পাঁচটি শিশুর মতন সুস্থ ও স্বাভাবিক হয়ে উঠতে পারবে কিনা এই প্রশ্ন এখন পরিবারের সদস্যদের। সদ্যোজাত শিশুর বড়মা ক্ষমা ঘোষ জানান, ডাক্তার এস মন্ডল এর তত্ত্বাবধানে ছিল প্রসূতি।

সদ্যোজাতর প্রসবের সময় পূর্ণ না  হওয়ায় চিকিৎসক বাইরে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেছিলেন। কিন্তু এই সংকটের মুহূর্তে তারা বাইরে না নিয়ে গিয়ে নার্সিংহোমেই রাখেন। ডাক্তার তুষার ভৌমিকের  অধীনে ওই শিশুর চিকিৎসা চলে। অন্যদিকে ডাক্তার তুষার ভৌমিক জানান ,প্রসবের আগে ওই শিশুর গঠনগত সমস্যা জানা যায়নি। এর আগে ওই প্রসূতির দুটো শিশু নষ্ট হয়েছে ।তাই এক্ষেত্রে তারা চেষ্টা করেছেন।

ঠিক সময়ে না হওয়ায় গঠনগত ত্রুটি ছিল শিশুর। ঠোঁট ও তালু তৈরি হয়নি। হার্টের সমস্যা ছিল। এক্ষেত্রে একটা ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা  ছিল। এরপর জন্ডিস হয়ে যায়। ওজন বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। তবে আগামী চার মাসের মধ্যে সম্পূর্ণ সুস্থ ও স্বাভাবিক হয়ে উঠবে বলে আশাবাদী তিনি। তবে ওই প্রসূতির সাত মাসে জল ভেঙে যাওয়ায় প্রসব ছাড়া অন্য কোন বিকল্প রাস্তা খোলা ছিলো না বলেও জানান তিনি।

 

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment