News Britant

Wednesday, August 17, 2022

দলছুট বুনো হাতির আক্রমণে মৃত ১, জখম ১

Listen

#মালবাজার: শনিবার এক দলছুট বুনো হাতির আক্রমণে মারা গেল একজন। গুরুতর জখম হলো আর একজন। ঘটনাটি ঘটেছে মাল ব্লকের কুমলাই চাবাগানে। মৃতের নাম রামকৃষ্ণ লোহার (৫২)।জখমের নাম খ্রিষ্টাফার টোপ্পো (৪৮)। স্থানীয় লোকজন ও বনকর্মীদের সুত্রে জানাগেছে, শনিবার সকালে তারঘেরা বনাঞ্চল থেকে ১৪- ১৫ হাতির একটি দল আচমকা গুডহোপ চাবাগানের রেলগেট পেরিয়ে কুমলাই চাবাগানে এসে উপস্থিত হয়। সম্ভবত রাতের বেলা বিচরণ করেছিল।

দিনের আলো ফুটতেই চাবাগানে আশ্রয় নেয়। চাবাগানে হাতির দল দেখে শ্রমিকদের মধ্যে চাঞ্চল্য সৃষ্ঠি হয়। হাতির দল দেখতে অনেকে ভীড় করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বন্যপ্রান শাখার মাল স্কোয়ার্ডের বনকর্মীরা। তারা হাতির দলটিকে বনের দিকে তাড়িয়ে নিয়ে যায়। অন্যান্য হাতিরা ফিরে গেলেও এক দাঁতাল আচমকা দলছুট হয়ে কুমলাই চাবাগানের শ্রমিক বস্তি এলাকায় ঢুকে পড়ে ছোটাছুটি শুরু করে।

এতেই ফ্যাক্টরি লাইন শ্রমিক বস্তিতে চাঞ্চল্য সৃষ্ঠি হয়। কেউ কেউ হাতি তাড়াতে ব্যস্ত হয়। বনকর্মীরা দলছুট এই হাতিটকে তাড়াতে ব্যস্ত হয়। সেইসময় রামকৃষ্ণ ও খ্রিষ্টাফার আচমকা হাতির সামনে পড়ে যায়। দুরন্ত দলছুট দাঁতাল তাদের আক্রমণ করে। দাঁত দিয়ে রামকৃষ্ণর পেটে বুকে আঘাত করে। খ্রিষ্টাফারকেও মারাত্মক ভাবে জখম করে। বনকর্মীরা দ্রুত তাদের মাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে আসে।

সেখান থেকে তাদের জলপাইগুড়ি স্থানান্তর করা হয়। জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে রামকৃষ্ণর মৃত্যু হয়। খ্রিষ্টাফার চিকিৎসাধীন। এরপর ওই দলছুট কুমলাই চাবাগানের ঝোড়া পেরিয়ে বেতবাড়ি চাবাগানের আবাদি এলাকায় আশ্রয় নেয়।

বন্যপ্রান শাখার মাল স্কোয়ার্ডের রেঞ্জার বিভুতি ভুষন দাস জানান, দলছুট হয়ে হাতিটি ছোটাছুটি করছিল। দুজন জখম হয়েছে। তাদের চিকিৎসা জন্য জলপাইগুড়ি পাঠানো হয়েছে।  একজন মারা গেছে। ঘটনাটি দুর্ভাগ্যজনক। বনদপ্তরের থেকে জানা হাতিটিকে ঘুম পাড়ানি গুলি করে কাবু করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Also Read