News Britant

Thursday, August 11, 2022

শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে তিন তরুনের লড়াইয়ে অ্যাডভান্টেজ তৃণমূল

Listen

#মালবাজার: রাজ্যের অন্যান্য এলাকার মতো ডুয়ার্সের মালবাজার শহরে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি পৌর ভোট হতে চলছে। শহরে রয়েছে ১৫ টি ওয়ার্ড ও ২৮ টি ভোট গ্রহণ কেন্দ্র। একমাত্র ১ নম্বর ওয়ার্ড ছাড়া বাকি ১৪ টি ওয়ার্ডে ত্রিমুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে এক প্রাথমিক চিত্র পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার শহরের ৫ নম্বর ঘুরে যেসব খন্ড চিত্র সামনে এসেছে তাতে দেখা গেছে তিন তরুনের লড়াইয়ে কিছুটা অ্যাডভান্টেজ অবস্থায় রয়েছে তৃণমূল প্রার্থী। শহরের নেতাজী কলোনি, বাঘাযতিন কলোনি, স্টেশন রোড, সৎকার সমিতি, ফরোয়ার্ড ক্লাব সংলগ্ন এলাকা নিয়ে গঠিত এই ওয়ার্ড। মোট ভোটার ১৩৫০ জন।

একদা লালদুর্গ বলে পরিচিত এই ওয়ার্ডে ১৯৯৯ সালে পৌর নির্বাচনে সিপিএমের প্রভাবশালী প্রার্থী পবিত্র সেনগুপ্তকে হারিয়ে এই ওয়ার্ড দখল করেন কংগ্রেসের মিঠু মুখ্যার্জী। তারপর থেকে এই ওয়ার্ড কুন্দন লোহার, গৌরী মুখ্যার্জী কংগ্রেসের টিকিটে জিতেছেন। ২০১৫ সালে এই ওয়ার্ড থেকে আবার মিঠু মুখ্যার্জী কংগ্রেসের টিকিটে জেতেন। পরে তিনি তৃনমুল কংগ্রেসে যোগ দেন। বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেস অন্যতম প্রধান শক্তি। গত কয়েক বছর উন্নয়ন মুলক কাজ হয়েছে।

তৃণমূলের ভিত শক্তিশালী রয়েছে। এবার এই আসনে প্রবীণ মিঠু মুখ্যার্জীর বদলে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী করেছে তরুণ ছাত্র নেতা তথা বিদায়ী পৌর প্রশাসক বোর্ডের সদস্য সুরজিৎ দেবনাথকে। প্রার্থী ঘোষিত হওয়ার অনেক আগে থেকেই এই ওয়ার্ডের জঞ্জাল সাফাই থেকে মানুষের পরিসেবা দেওয়ার কাজ। করেছেন। প্রার্থী ঘোষিত হওয়ার পর গোটা ওয়ার্ড পতাকা ও ফ্লেক্স দিয়ে মুড়ে দিয়েছেন। খুলেছেন নির্বাচনী দপ্তর।প্রচারে পাশে পেয়েছেন একদল তরুণদের। নিয়মিত বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন নিজেই জানালেন, যেসব সমস্যা রয়েছে তা দ্রুত মেটাতে উদ্যোগী হব

এই ওয়ার্ড একদা লালদুর্গ বলে পরিচিত ছিল। বামেদের কিছু ব্লক ভোট এখনো রয়েছে। করোনা সংক্রামণ কালে জীবনের ঝুকি নিয়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি খাদ্য ওষুধ পৌঁছে দেওয়া যারা দায়িত্ব নিয়ে পালন করেছে সেই রেড ভলেন্টিয়ারদের অন্যতম সদস্য সমীর সিংহকে এই ওয়ার্ডে  প্রার্থী করেছে সিপিএম। প্রার্থী হয়েই গোটা ওয়ার্ডে লালঝাণ্ডা ও ফ্লেক্স লাগিয়েছেন। পাশে পেয়েছেন নবীন প্রবীণ দলীয় কর্মীদের। প্রচারও করছেন। নিজে জানালেন, দূর্নীতি মুক্ত স্বচ্ছ প্রশাসন দেওয়ার লক্ষ্য নিয়েই আমাদের লড়াই। মানুষের সাথে আছি সাথেই থাকব।

বিজেপি এই ওয়ার্ডে আগে শক্তিশালী ছিল না। গত পৌর ভোটে বিজেপি প্রার্থী সামান্য কিছু ভোট পেয়েছিল। তারপর বিজেপির উত্থান ঘটে। গত লোকসভা নির্বাচনে অন্যদের পিছনে ফেলে দেয়। তৈরি হয় বিজেপির সংগঠন। কিন্তু, গত বিধানসভা নির্বাচনের পর দলের অনেক কর্মী দলত্যাগ করে। এমতাবস্থায় বিজেপি দলের তরুন কর্মী সমীর সিংহকে প্রার্থী করেছে। সমীর বাবুও পতাকা ও ফ্লেক্স লাগিয়েছেন। কর্মীদের নিয়ে প্রচার করছেন। নিজে বললেন, জিতলে ওয়ার্ডের সমস্যা দূর করতে তৎপর হব।

তিনদল প্রচার করলেও গত করপোরেশন নির্বাচনের ফলাফল এই ওয়ার্ডের তৃণমূল কর্মী দের দারুণ ভাবে অনুপ্রানিত করেছে। সবাই প্রার্থীকে জেতাতে ঝাপিয়ে পড়েছেন। এতেই এই ওয়ার্ডে অন্যদের তুলনায় তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সুরজিৎ দেবনাথ খানিকটা অ্যাডভান্টেজে রয়েছেন।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment