News Britant

Thursday, August 11, 2022

শিক্ষকদের যাতায়াত অনিয়মিত, অভিভাবকরা তালা ঝোলালো গেটে, বন্ধ মিড ডে মিল

Listen

#রায়গঞ্জঃ স্কুলে সঠিক সময়মত আসেন না শিক্ষক শিক্ষিকারা। স্কুলে না এসে হাজিরা খাতায় সই করে দেন শিক্ষক শিক্ষিকারা। এরকম পরিস্থিতিতে, শুক্রবার দুপুরে স্কুলের গেটে তালা ঝোলালো গ্রামবাসীরা। এমন ঘটনায় আজ মিড ডে মিলও বন্ধ রাখলেন কুমারজোল প্রাথমিক স্কুলের স্কুলের প্রধান শিক্ষক। এমন অনভিপ্রেত ঘটনায় আগামী সপ্তাহে রিপোর্ট করতে বলেছেন অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক।

রায়গঞ্জ ব্লকের বাহিন গ্রাম পঞ্চায়েতের কুমারজোল প্রাথমিক স্কুলে ১৭৬ জন ছাত্র-ছাত্রী এবং দুইজন পার্শ্বশিক্ষক সহ মোট ৭ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা রয়েছেন। অভিযোগ, ছাত্র-ছাত্রীরা সাড়ে দশটার মধ্যে স্কুলে চলে আসলেও শিক্ষক -শিক্ষিকারা ১২ টার আগে আসেন না। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধেও  নিয়মিত  স্কুলে না আসার অভিযোগ করেন বাসিন্দারা।

গ্রামবাসী মান্নান আলি, অলি মহম্মদ, মেহেরুল হক, আনোয়ার আলি, জাবেদুল ইসলামের দাবি, এই অনিয়মিত যাতায়াতের বিষয়ে প্রধানশিক্ষক সহ অন্যান্য শিক্ষকদের অনুরোধ জানালেও তারা আমাদের কথায় কর্ণপাত করছিলেন না। তাই আজ প্রধান শিক্ষককে আমরা আটকে রেখেছি এবং দেরি করে আসা অন্য শিক্ষকদের স্কুলে ঢুকতে দিইনি।

এদিকে, এদিন প্রায় ২ ঘন্টা স্কুলের প্রধানশিক্ষককে আটকে রাখায় স্কুলের মিড ডে মিল রান্না হয়নি। গ্রামবাসী মান্নান আলি বলেন, এই স্কুলের  শিক্ষকরা নিয়মিত আসেন না।  ফলে পড়াশোনা পুরোপুরি লাটে উঠেছে। কেউ কেউ স্কুলে আসলেও অনেক দেরিতে আসেন। এসে হাজিরা খাতায় সই করেন। প্রধান শিক্ষকও মাঝেমধ্যে দেরি করেন। তাই আজ প্রধান শিক্ষককে তালা বন্ধ করে রেখেছিলাম।

দীর্ঘক্ষণ আটকে রাখার পর রায়গঞ্জ দক্ষিণ সার্কেলের অবর বিদ্যালয় পরিদর্শকের আশ্বাস পেয়ে প্রধান শিক্ষককে তালা মুক্ত করেন গ্রামবাসীরা। খুলে দেওয়া হয়  গেটের তালা। এদিকে ওই স্কুলের  প্রধান শিক্ষক মহ মনজুর হক গ্রামবাসীদের অভিযোগ স্বীকার করে নিয়ে জানিয়েছেন, আমার স্কুলে শিক্ষকরা নিয়মিত আসেন না। তাই আমাকে আটকে রেখেছিল। বহুক্ষণ পরে তালা খুলেছে। তালা বন্ধ ছিল বলে মিড ডে মিল রান্না হয়নি। আগামী মঙ্গলবার অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক দেখা করতে বলেছেন।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment