News Britant

Thursday, August 11, 2022

পূজোর মুখে বন্ধ হয়ে গেল সাইলি চাবাগান বিপাকে ১৫০০ চা শ্রমিক

Listen

#মালবাজারঃ পুজোর মুখে রাতের অন্ধকারে বাগানের গেটে বাগান বনধের নোটিশ ঝুলিয়ে কর্তৃপক্ষ চা বাগান ছেড়ে চলে গেলো। ঘটনাটি ঘটেছে মালবাজার ব্লকের সাইলি চা বাগানে। এদিন সকালে শ্রমিকরা কাজে গেলে বাগানের ফ্যাক্টরির গেট দেখেন তালা বন্ধ, গেটে ঝোলানো হয়েছে বাগান বনধের নোটিশ। যা দেখে পুজোর মুখে চরম বিপদের মধ্যে পড়ে গেছেন বাগানে কর্মরত ১৫০০ শ্রমিক কর্মচারী।
বাগানের শ্রমিক স্বপ্না প্রধান, বিজিতা কেরকেট্টা প্রমুখ আজ ফ্যাক্টরির গেটে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তারা বলেন প্রতিবছর পুজোর সময় বাগান কর্তৃপক্ষর বোনাস দেবার সময় এলেই বাগান বনধের নোটিশ ঝুলিয়ে বাগান ছেড়ে চলে যান। গতবছরের বোনাসের সময়ও এমন ঘটনা ঘটিয়েছিলেন। ২০% হারে বোনাস দেবার কথা থাকলেও বাগান কর্তৃপক্ষ এবারও সেই হারে বোনাস দেবেন না বলেই জানিয়ে আসছিলেন। গতবছর ১৭.৫% হারে বোনাস দেবার কথা বললেও পরে ১৪% হারে বোনাস প্রদান করেছিলেন। এবছরে বোনাস না দিয়েই বাগান কর্তৃপক্ষ বাগান ছেড়ে চলে গেলেন। শ্রমিকরা বলেন, বাগানে সারা বছর ধরে কাজ করলেও বেতন ছাড়া আর কোনো সুবিধাই কর্তৃপক্ষ প্রদান করেন না। সুবিধা বলতে পুজোর সময় প্রদান করা বোনাসটুকুই। যা দিতেও এতো গড়িমসি করেন। তাহলে আমরা কোথায় যাব।   
এ প্রসঙ্গে বাগানের শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃত্ব বলেন, গতকাল  রাত্রি ১০ টা পর্যন্ত বাগানে কাজ হয়েছে। আমরা কেউই জানতে পারিনি বাগান বন্ধের বিষয়টি। কর্তৃপক্ষ রাতের অন্ধকারেই বাগান বনধের নোটিশ জারি করে বাগান ছেড়েছেন। পুজোর মুখে বাগান বনধে সমস্যায় পড়ে গেলো বাগানের সমস্ত শ্রমিক কর্মচারীরা। তারা সকলেই প্রশাসনিক সহযোগিতার দাবী জানিয়েছেন।
এ প্রসঙ্গে মালবাজার বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক তথা চা শ্রমিক নেতা বুলু চিক বড়াইক বলেন, “বিষয়টি আমি কিছুক্ষণ আগেই জেনেছি। সমস্যার বিষয়ে বাগান কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনিক মহলে আলোচনা করবো এবং সমস্যার সমাধানে সচেষ্ট ভূমিকা পালন করবো “।উল্লেখ্য, চলতি বছর বোনাস মিটিংয়ে সাইলি চাবাগানের রুগ্নতার জন্য ১৫.৫ হারে বোনাস দেওয়ার কথা ঘোষণা হয়। শ্রমিক এটা মানতে চায়নি। তারা ২০ শতাংশ হারে বোনাসের দাবী আন্দোলন শুরু করে। ইতিমধ্যে কাজ বন্ধ করে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছে।
বাগান বনধের বিষয়ে বাগান কর্তৃপক্ষর তরফ থেকে কোনোরূপ মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এ প্রসঙ্গে মালবাজার লেবার ওয়েলফেয়ার আধিকারিক সি শেরপা  বলেন, ” আজ বিকেলে মাল ব্লক উন্নয়ন আধিকারিকের অফিসে বৈঠক ডাকা হয়েছে, যেখানে বাগান কর্তৃপক্ষকেও ডাকা হয়েছে”। মালবাজার মহকুমাশাসক  এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেবার আশ্বাস দিয়েছেন।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment