News Britant

Wednesday, August 17, 2022

বঙ্গভাষা আন্দোলন ও পশ্চিমবঙ্গের বাঙালি বিষয়ে আলোচনা রায়গঞ্জে

Listen

#রায়গঞ্জঃ শনিবার রাতে রায়গঞ্জ সুপারমার্কেটের বিজয়া ভবনে অনুষ্ঠিত হল বঙ্গভাষা আন্দোলন ও পশ্চিমবঙ্গের বাঙালি বিষয়ে এক মনোজ্ঞ আলোচনা সভা। এই আলোচনা সভায় বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলার  অধ্যাপক ড. দীপক চন্দ্র বর্মণ ও ইসলামপুর থেকে মেসেজ অফ হিউম্যানিটি পত্রিকার সম্পাদক কবি সাহিত্যিক সর্বাশীষ কুমার পাল।

অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা তথা রায়গঞ্জ কবিকথার সম্পাদক যাদব চৌধুরী বলেন, এদিন আলোচনা সভার  সাথে ছিল কবিতা পাঠের আসর। ক্ষুদে শিল্পী ঋতজা বর্মণ ভাষা ভাবনার উপর  উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেl স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি খুশি সরকার, তাপস কুমার বর্মণ, শিপ্রা দেবনাথ, দেবাশীষ মজুমদার, প্রতিমা বিশ্বাস সাহা প্রমুখl

আবৃত্তি পরিবেশন করে ঋতজা বর্মণl বিষয়ভিত্তিক আলোচনায় বলতে গিয়ে সর্বাশীষ কুমার পাল বাংলা ভাষার সৃষ্টি ও বিস্তারের  প্রসঙ্গ উল্লেখ করে যুগে যুগে এই ভাষা যে সংকট ও আগ্রাসনের শিকার হয়েছে তার উল্লেখ করেন এবং বাস্তব কিছু সমস্যার নিরিখে তার থেকে উত্তরণের বিষয়ে কিছু মূল্যবান পরামর্শ প্রদান করেনl

এদিনের মূল বক্তা অধ্যাপক দীপক চন্দ্র বর্মণ বঙ্গভাষা আন্দোলন সম্পর্কে বলতে গিয়ে মানভূমের  প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন।  তাঁর কথায় বলেন বঙ্গভাষা আন্দোলনের শুরু মানভূম ভাষা আন্দোলন, যার পরিণতিতে পুরুলিয়া জেলার সৃষ্টি এবং পশ্চিমবঙ্গে তার অন্তর্ভুক্তি, এটা দিয়ে শুরু করা যেতে পারে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলা ভাষা যে আগ্রাসনের শিকার হয়েছে তার বিস্তারিত আলোচনাও করেন তিনি।

পাশাপাশি বাংলা ভাষাকে শক্তিশালী করে গড়ে তোলা, প্রযুক্তিগত সব  রকমের সুবিধা বাংলা ভাষা ব্যবহারকারীদের আয়ত্তাধীন করা, পঠন পাঠন, সরকারি কাজ ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ে বাংলা ভাষার ব্যাপক ব্যবহার ইত্যাদির ওপর তিনি জোর দেন। প্রতি আলোচনায় অংশ নিয়ে দেবাশিস মজুমদার, নীরদ রঞ্জন রায় প্রমুখ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিকের উল্লেখ করেন।

রায়গঞ্জ কবিকথা উত্তর দিনাজপুরের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কালিয়াগঞ্জ কলেজের অধ্যাপক ড. চন্দন রায় কবিকথা সৃষ্টির উদ্দেশ্য এবং এই সংস্থাটি ঘিরে তাঁর স্বপ্ন ও ভবিষ্যৎ প্রত্যাশার বিষয়ে আলোকপাত করেন।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment