News Britant

Tuesday, September 27, 2022

ডালখোলা শহরের যানজটের মধ্যে গাড়ি চালাতে বাধ্য করছে প্রশাসন, অভিযোগে সরব প্লাবন প্রামানিক

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#দেবলীনা ব্যানার্জী, রায়গঞ্জ: ডালখোলা বাইপাসে নতুন রাস্তা চালু হওয়া সত্ত্বেও প্রশাসনিক ভাবে চাপ সৃষ্টি করে শিলিগুড়িগামী সব গাড়িকে ডালখোলা বাজারের ভেতর দিয়ে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে। এই অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন করে সরব  হলেন উত্তর দিনাজপুর বাস মিনিবাস ওনার্স  ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক প্লাবন প্রামাণিক। দীর্ঘদিন ধরেই শিলিগুড়ি যাতায়াতের ক্ষেত্রে ডালখোলা রেলগেটের জ্যামের কারণে নাজেহাল হতে হচ্ছিল যাত্রীদের।

ডালখোলা বাইপাস চালু হলে এই বৃহৎ সমস্যার সমাধান হবে সেই আশায় ছিলেন জেলাবাসী। কিন্তু ডালখোলা বাইপাস চালু হওয়ার পরও শুধুমাত্র ডালখোলার ব্যবসায়ীদের আর্থিক সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে সমস্ত বাস ও মিনিবাসকে ডালখোলা শহরে ঢুকতে বাধ্য করা হচ্ছে। এরপরে দীর্ঘক্ষণ যানজটে আটকে থাকছে গাড়িগুলি। সময় নষ্ট হওয়ায় যাত্রীরা বিমুখ হয়ে পড়ছেন, যার ফলে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ছেন বাসমালিকরা। এমনই অভিযোগে সরব হয়েছেন প্লাবনবাবু।

তিনি এদিন বলেন, “আমরা সুরজাপুরে ৩৪০ টাকা টোল ট্যাক্স দিই এন এইচ এ চলাচল করার জন্য। তা সত্ত্বেও করণদিঘী বিধানসভার বিধায়ক, ডালখোলার পৌরপতি, ডালখোলা পুলিশ প্রশাসন ও ডালখোলা ব্যবসায়ী সমিতি আমাদের সাথে জোরজবরদস্তি করে বাধ্য করছেন ডালখোলা শহরে  গাড়ি ঢোকানোর জন্য। গত ২৬ শে আগস্ট  আর টি ও এর পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে, যে গাড়িগুলোর পারমিট ডালখোলা বাজারে আছে সেগুলো বাজারের ভেতর দিয়েই নিয়ে যেতে হবে।

যদিও এসব গাড়িগুলোর পারমিটে ডালখোলা বাজার বলে আলাদা করে কোনো উল্লেখ নেই।” একইসাথে ডালখোলা বাজারও ডালখোলা বাইপাস উভয়ই ডালখোলার মধ্যে পড়ে। সেক্ষেত্রে শত জ্যাম সত্ত্বেও  ডালখোলা শহরের যানজটের মধ্যে গাড়িগুলোকে যেতে কেনো বাধ্য করা হবে বলে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। ভবিষ্যতেও এরকম চাপ সৃষ্টি হতে থাকলে  অনির্দিষ্ট কালের জন্য তারা মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, বালুরঘাট এই চার জেলার সমস্ত গাড়ি বন্ধ রাখতে বাধ্য হবেন বলে জানান। এছাড়াও দক্ষিণ দিনাজপুর গামী প্রাইভেট গাড়ি গুলি বিগত রবিবার থেকে চলাচল করছে না, রাস্তায় অটো টোটোর অনিয়ন্ত্রিত চলাচলের জন্য বারবার ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেও কোন সুরাহা না হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave a Comment