News Britant

Saturday, December 3, 2022

ব্যবসায়ীকে ফোনে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূল ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#মালবাজারঃ গত দুবছর ধরে ডুয়ার্সের মাল ব্লকের ডামডিম রেল স্টেশন এলাকা থেকে ট্রেনে করে  পাথর রপ্তানি হচ্ছে বাংলাদেশে। আর এই বাংলাদেশে পাথর রফতানির কাজে জড়িত এক লাইসেন্স প্রাপ্ত ব্যবসায়ীকে বৃহস্পতিবার রাতে টেলিফোনে হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূলের মাল গ্রামীন ব্লক কমিটির সভাপতি তথা সাবেক মাল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুশীল কুমার প্রসাদ।

ওই ব্যবসায়ী এবং সুশীল কুমার প্রসাদের টেলিফোনে কথোপকথনের একটি অডিও ক্লিপ (যদিও অডিও ক্লিপের সত্যতা যাচাই করা যায় নি) ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেওয়া হয়েছে। দু পক্ষের উত্তেজিত কথাবার্তার সেই অডিও ক্লিপে  শঙ্কর দাস নামে  ব্যবসায়ীকে, তৃনমুল এর ব্লক সভাপতি  সুশিল কুমার প্রসাদ জুতোপেটা করবেন বলে শোনা গিয়েছে। যদিও সমস্ত কিছু রাগের মাথায় হয়েছে বলে জানা তৃণমূল নেতা জানিয়েছেন।

ঘটনার সূত্রপাত ডামডিম স্টেশনে রেলের রেক পয়েন্ট থেকে বাংলাদেশে ভাঙা পাথর রফতানির ব্যবসাকে কেন্দ্র করে। জানা গিয়েছে যে কলকাতার ওরিয়েন্ট এক্সপোর্ট নামে একটি সংস্থার পক্ষে ফুলবাড়ির বাসিন্দা শঙ্কর দাস নামে এক ব্যবসায়ী মাল ব্লকের কিছু ক্রাশার থেকে বাংলাদেশের আমদানিকারকদের চাহিদা মতো বিভিন্ন সাইজের ভাঙা পাথর ক্রয় করে রেলের ওয়াগনে চাপিয়ে বাংলাদেশে রফতানি করার কাজ গত দুবছর ধরে করছেন। 

শঙ্কর দাস বলেন, পাথর রফতানির আগে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি সুশীল কুমার প্রসাদকে কখনো ৫০ এবং কখনো ৭০ হাজার টাকা করে কাটমানি দিতে হয়। মাঝে মধ্যে আমাদের স্টাফদেরো মারধোর করে এই নেতার সাঙ্গপাঙ্গরা। পাশাপাশি তৃণমূল এর ব্লক সভাপতি কাছ থেকেই এইসব কাটা পাথর কিনতে হবে বলে চাপ দেন বলে ব্যাবসায়ী অভিযোগ করেছে।বৃহস্পতিবার রাতে টেলিফোনে হুমকির বিষয়টি নিয়ে শঙ্কর দাস নামে ওই ব্যবসায়ী বলেন,  টাকা আদায়ের জন্য সুশীল কুমার প্রসাদ গতকাল রাতে ফোন করে আমাকে জুতোপেটা করবেন বলে হুমকি দেন। 

রাতে আমি ডামডিমে এলে  আমার এক কর্মীকে, সুশিল কুমার  প্রসাদের সঙ্গীরা মারধোর করে।পুরো ঘটনা কলকাতায় তৃণমূলের সদর দপ্তরে জানিয়েছেন শঙ্কর বাবু। যদিও বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূলের মাল গ্রামীন ব্লক কমিটির সভাপতি সুশীল কুমার প্রসাদ। তার সাফ কথা, শঙ্কর বাবু কথা দিয়েও সময়মতো পাওনাদারদের পেমেন্ট করেন নি।

এদিকে পাওনাদাররা আমাকে বিরক্ত করে তুলছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে উত্তেজনার বশে জুতোপেটা করবো বলাতেই পাওনার পুরো কয়েক লক্ষ টাকা আদায় হয়েছে। তবে কাটমানি আদায়ের অভিযোগও সম্পুর্ন মিথ্যা বলে জানিয়েছেন সুশীল কুমার প্রসাদ। পুরো বিষয়টিকে তার রাজনৈতিক ক্যারিয়ার কালিমালিপ্ত করার চক্রান্ত বলে জানিয়েছেন সুশীল কুমার প্রসাদ।

Leave a Comment