News Britant

Thursday, December 8, 2022

উত্তরবঙ্গ সফরের প্রথম দিন তেশিমলা এসে পৌছালেন মুখ্যমন্ত্রী গেলেন মৃতদের বাড়ি

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#মালবাজার: মালনদীর ঘাটে  ভাসান বিপর্যয়ের পর উত্তরবঙ্গ সফরের প্রথম দিনে তেশিমলায় এসে পৌছালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সোমবার মুখ্যমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সকাল থেকে মালবাজার শহর, বড়দীঘি হাইস্কুল এবং তেশিমলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় প্রশাসনিক তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। সবচাইতে বেশি তৎপরতা বড়দীঘি ও তেশিমলা এলাকায়। 

মুখ্যমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তেশিমলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার প্রধান মোর থেকে বড়দীঘি হাইস্কুল পর্যন্ত ২ কিমি রাজ্য সরকের দু’ধারে অসংখ্য মানুষ দুপুর ১২ টা থেকে নেত্রীকে দু চোখে দেখার জন্যে অধির আগ্রহে অপেক্ষা করতে থাকেন। বিকাল প্রায় ৪ নাগাদ মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে বায়ু সেনার হেলিকপ্টার বড়দীঘি হাইস্কুল মাঠে অবতরণ করে।

সেখানে তাকে স্বাগত জানাতে অপেক্ষায় ছিলেন রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণীর কল্যাণ ও আদিবাসী উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী বুলু চিকবরাইক, মাল পৌর সভার চেয়ারম্যান স্বপন সাহা, জেলা শাসক মৌমিতা গোদারা বসু, আইজি উত্তরবঙ্গ দেবেন্দ্র প্রসাদ সিং সহ অন্যান্যরা। হেলিপ্যাডে নেমে মুখ্যমন্ত্রী তার স্বভাবসিদ্ধ ভাবে সবাইকে শুভেচ্ছা জানান। এরপর মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে তার কনভয় সোজা রওনা দেয় মালনদীর বিসর্যন ঘাটের দিকে। যেখানে গত ৫ অক্টোবর রাতে আচমকা হরপা বানে ৮ জনের মৃত্যু হয়।

রাস্তার দু’ধারে তখন অসংখ্য মানুষ। মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে তার কনভয় ধীর গতিতে চলা শুরু করে। নেত্রী গাড়ি থেকেই দুহাত জোর সবাইকে শুভেচ্ছা জানান। এরপর সোজা চলে যান মালবাজার শহরের অভিমুখে। সেখানে সেদিনের ভাসান বিপর্যয়ে মৃতদের বাড়িতে যান। এক এক করে মৃত তপন অধিকারী, সর্নদীপ অধিকারী, শুভাশিস রাহা সহ অন্যান্য পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করেন।

অত্যন্ত আবেগের সঙ্গে কথা বলেন পরিবারের সদস্যদের সাথে। পর পর ৬ টি পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন। সেদিনের পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নেন। পরন্ত বিকেলে পায়ে হেটে প্রতি পরিবারের কাছে পৌঁছে যান। এরপর ফিরে আসেন তেশিমলা এলাকার সেই বেসরকারি লজে। সেখানে রাত কাটিয়ে আগামী কাল মাল আদর্শ বিদ্যা ভবনে প্রশাসনিক বৈঠক করবেন বলে জানাগেছে। 

Leave a Comment