News Britant

Friday, January 27, 2023

শহরের রাজপথে বাঁশি হাতে স্বয়ং শ্রীকৃষ্ণ, দেখতে উপচে পড়ল ভিড়

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#চন্দ্র নারায়ণ সাহা, রায়গঞ্জঃ রায়গঞ্জ শহরের রাজপথ ধরে হেঁটে চলেছেন বাঁশি হাতে স্বয়ং শ্রীকৃষ্ণ। পাশে লাঙ্গল কাঁধে দাদা বলরাম। সঙ্গে গাড়ি ও গো-বৎস সমেত রাখাল বালকের দল। অষ্টসখী গোপ-গোপিনীর সঙ্গে আছেন বড়াই বুড়ি, জটিলা কুটিলারাও। সপার্ষদ রাখাল রাজা এদিন বৃন্দাবনের গোষ্ঠ লীলা করতে নেমেছিলেন রায়গঞ্জের রাজপথে।

এসব কোনও মাটির তৈরি দেবদেবীর পুতুল বা মূর্তি নয়, শ্রীকৃষ্ণের গোষ্ঠ যাত্রা উপলক্ষ্যে জ্যান্ত মানুষ নিজেকে সাজিয়েছেন শ্রীকৃষ্ণ, শ্রীরাধিকা, বলভদ্র সহ তাদের নানা সহচর রূপে। ৯৬ তম গোষ্ঠ উৎসবের শোভাযাত্রা উপলক্ষে এমনই ছবি দেখা গেল সোমবার রায়গঞ্জ শহরে। এদিন সকালে ঐতিহ্যবাহী এই গোষ্ঠ উৎসবের সূচনা হয়। মূলতঃ গো মাতাকে বন্দনা করেই এই উৎসব পালন করা হয় বলে জানিয়েছেন পূর্ণার্থীরা।

উৎসব কমিটির পক্ষে স্থানীয় কাউন্সিলর চৈতালী ঘোষ সাহা  বলেন, সোমবার সকালে রায়গঞ্জ শহরের বিদ্রোহী মোড় থেকে গোষ্ঠ উৎসব উপলক্ষ্যে একটি শোভাযাত্রা বের হয়। প্রধান সড়কপথ ধরে এগিয়ে চলা এই শোভাযাত্রায় কৃষ্ণ, বলরাম, জগন্নাথ, বলরামের জীবন্ত মডেল দেখা যায়, সঙ্গে ছিল সুসজ্জিত রাখাল বালকের দল। শোভাযাত্রা আলোকিত করেছিল কৃষ্ণের রাধিকা, অষ্টসখী, গোপ-গোপিনী, বড়াই বুড়ি, জটিলা কুটিলারাও।

তিনি জানান, রায়গঞ্জ শহরে গোষ্ঠ উৎসব একসময় অনাড়ম্বর ভাবে পরিচালিত হলেও পরবর্তীতে ধুমধামের সঙ্গে হয়ে আসছে। এদিনের শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ বিধানসভার বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। আগামী ছয়দিন এই উৎসব চলবে। তবে সম্প্রতি দুর্গাপুজোর কার্নিভালে বড় গরুর আঘাতে এক ব্যক্তির মৃত্যু জনিত কারণে পশুর ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। তাই এবার কোনো পশু ছাড়াই পালিত হল গোষ্ঠ উৎসবের শোভাযাত্রা।

উল্লেখ্য, এই উৎসবের প্রতিষ্ঠা করেন রায়গঞ্জের বন্দর এলাকার নিবাসী গোপালচন্দ্র মণ্ডল। বাংলাদেশের দিনাজপুরের মহারাজদের গোষ্ঠ উৎসবে গিয়ে তিনি পুত্র সন্তান লাভের উদ্দেশ্যে প্রার্থনা করে বলেছিলেন, যদি তার মনোস্কামনা পূর্ণ হয়, তিনিও গোষ্ঠ উৎসব পালন করবেন ধুমধামের সঙ্গে। এরপরই ১৯২৭ সালে তার তৃতীয় স্ত্রীর গর্ভে পুত্র সন্তান লাভ করেন।

গোপাল বাবু ছেলের নাম রাখেন গোষ্ঠ বিহারী। পরে মানিকলাল মণ্ডল নামে পরিচিত হয় তিনি। গোপাল বাবু ও মানিক বাবুর পর উৎসবের দায়িত্ব এখন মানিক বাবুর ভাই কানাইলাল মণ্ডলের ওপর তবে পারিবারিক এই উৎসবটি আজ উত্তরণ ঘটেছে সার্বজনীতায়। গঠিত হয়েছে উৎসব কমিটি বন্দর এলাকার অধিবাসীদের নিয়ে।’ এই শোভাযাত্রা দেখতে এদিন ভিড় উপচে পড়েছিল শহর জুড়ে।

Leave a Comment