News Britant

Thursday, December 8, 2022

১১ বছর শিক্ষকতার পর চাকুরী হারিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার হুমকি কম্পিউটার শিক্ষিকার

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#রায়গঞ্জঃ ২০১১ সাল থেকে দেবীনগর গয়ালাল রামহরি গার্লস হাই স্কুলে ম্যানেজিং কমিটির নিয়োগ পেয়ে কম্পিউটার শিক্ষিকা পদে চাকরি করছেন ডলি দত্ত। কিন্তু গত শুক্রবার হঠাৎই তার জায়গায় ICT শিক্ষিকা হিসেবে নতুন একজনকে নিয়োগের জন্য ওয়েবেল থেকে স্কুলে মেল আসে। আর আজ নতুন শিক্ষিকা কাজে যোগদান করতে এলে ক্ষোভ উগরে দেন স্কুলের শিক্ষিকারা। এমন পরিস্থিতিতে চাকরি হারিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার হুমকি দিলেন আগের কম্পিউটার শিক্ষিকা ডলি দত্ত। সূত্র মারফত জানা গেছে,  রায়গঞ্জ কলেজপাড়ার বাসিন্দা ডলি দত্ত নামে ঐ শিক্ষিকা স্থানীয় দেবীনগর গয়লাল গার্লস হাই স্কুলে কম্পিউটার শিক্ষিকা হিসাবে ২০১১ সালের ২ রা মে কাজে যোগদান করেন।

কিন্তু এদিন স্কুলে এসে তিনি জানতে পারেন তার জায়গায় অন্য আরেকজন শিক্ষিকাকে নিয়োগ করেছে ওয়েবেল। এমন পরিস্থিতিতে পুরোনো শিক্ষিকার সমর্থনে, তার পাশে দাঁড়িয়েছেন তার প্রতিবেশী ও স্থানীয় বাসিন্দারা।  এদিন দেবীনগর গয়ালাল গার্লস স্কুলের সামনে তীব্র বিক্ষোভ দেখান তারা। এই সময় হৈমন্তী রায়চৌধুরী নামে নতুন নিযুক্ত হওয়া শিক্ষিকা উপস্থিত হলে স্থানীয়রা তাকে স্কুলে ঢুকতে বাধা দেয়।

ডলি দত্ত জানান, দীর্ঘদিন চাকরিরতা থাকার পর বিগত ২০শে মার্চ আইসিটি প্রজেক্টে একটি পরীক্ষা নেওয়া হয়, সেই সময় স্কুল থেকে আমাকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য আইসিটি কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করা হয়। তবুও আমাকে নিয়োগ দেওয়া না হওয়ায় বিপদগ্রস্ত হয়ে পড়েছি। তিনি জানান, তার নিয়োগ না হলে পরবর্তীতে দীর্ঘতর আন্দোলনে যেতেও পিছপা হবেন না।

পাশাপাশি, হৈমন্তী রায়চৌধুরী জানান, তিনি বিগত ২০শে মার্চ আইসিটি প্রজেক্টে যে পরীক্ষা নেওয়া হয় তাতে তিনি সফলভাবে উত্তীর্ণ হন এবং নিয়োগপত্র পান। কিন্তু আজ কাজে যোগদান করতে এসে বাধার সম্মুখীন হন। স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ভাস্বতী বসু বিশ্বাস এই নিয়োগ সংক্রান্ত জটিলতার জন্য স্কুল কোনভাবেই দায়ী নয় বলে জানান এবং তিনি বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবেন বলে আশ্বস্ত করেন। এলাকায় চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

Leave a Comment