News Britant

Friday, December 9, 2022

একত্রিশ বছরের দীর্ঘ যন্ত্রনা ও সমস্যার মুক্তি, খুশির আবহ ইসলামপুরে

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#ইসলামপুর: এক জেলায় থেকে কাজ করতে যেতে হতো আরেক জেলা সদরে। দীর্ঘ পথ পেরিয়ে অতিরিক্ত মাশুল গুনে ডাকঘরের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় অফিসিয়াল কাজ করতে রীতিমতো ঘাম ছুটতো ইসলামপুর মহকুমার বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষদের। অবশেষে সুরাহা হল সেই দীর্ঘদিনের সমস্যার। প্রধান ডাকঘর পেল রায়গঞ্জবাসী। খুশীর আবহ উত্তর দিনাজপুর জেলা জুরে।

শুক্রবার দুপুরে রায়গঞ্জ শহরে এই প্রধান ডাকঘর পথচলা শুরু করল। এদিন ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে এই প্রধান ডাকঘরের উদবোধন করলেন কেন্দ্রীয় কমিউনিকেশন প্রতিমন্ত্রী দেবুসিংহ চৌহান। ভার্চুয়ালি বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর বাসীর জন্য বড়সড় উদ্যোগ। সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরীর আবেদন পর্যবেক্ষন করে প্রধান ডাকঘর স্থানান্তরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এখন থেকে উত্তর দিনাজপুরের ডাক পরিষেবা পরিচালিত হবে রায়গঞ্জ প্রধান ডাকঘর থেকে। এতে জেলার মানুষ উপকৃত হবেন। এদিনের উদবোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী, পশ্চিমবঙ্গ সার্কেলের ডাক কর্তা জে, চারুকেশী সহ অন্যান্য বিশিষ্ট মানুষজন। জানা গিয়েছে এতদিন ২ দিনাজপুর জেলা ডাক সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যসূচী পরিচালিত হত বালুরঘাট প্রধান ডাকঘর থেকে।

এতে দঃ দিনাজপুর জেলা বাসীর সুবিধা হলেও সমস্যায় পরতে হত উত্তর দিনাজপুর বাসীকে। বিশেষকরে ইসলামপুর মহকুমার মানুষকে। যেকোনো কাজে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে বালুরঘাটে যেতে হত তাদের। এতে একদিনে কাজ শেষ করে ঘুরে আাসা সম্ভব হত না। সেই সঙ্গে খরচ হত প্রচুর টাকা পয়সাও। বিশেষ করে মধ্য ও নিম্নবিত্ত মানুষদের দূর্ভোগে পরতে হত। তাই বেশ বহুদিন থেকেই এই ডাক বিভাগ পৃথকীকরনের দাবী উঠছিল।

সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী বলেন, “এতদিনেও কেন এই পৃথকীকরন কাজ হয়নি তা বোধগম্য হচ্ছে না। আমি এসে এবিষয়ে উদ্যোগী হই। অবশেষে সাফল্য মেলে। এখন আর ডাক সংক্রান্ত কাজে মানুষকে দৌড়তে হবে না ২৫০ কিলোমিটার দুরে।” কেন্দ্রীয় যোগাযোগ মন্ত্রক ও সাংসদকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জেলার সাধারন মানুষ।

Leave a Comment