News Britant

শুখিয়ে যাচ্ছে কুয়ো বাড়ি বাড়ি জল পৌঁছে দিতে বৃহত্তর জল প্রকল্প পৌরসভার

Listen

( খবর টি শোনার জন্য ক্লিক করুন )

#মালবাজার: শুখিয়ে যাচ্ছে কুয়োর জল। ভরসা বলতে জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি বিভাগের টাইম কলের জল ও পৌর সভার নলকূপ। গত এক দশকের বেশি সময় ধরে ডুয়ার্সের মালবাজার শহরে শুখার মরসুমে ফেব্রুয়ারি,মার্চ ও এপ্রিল মাসে এই সমস্যা সৃষ্টি হয় বিভিন্ন ওয়ার্ডে। শহরবাসীকে সেই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে মাল পৌরসভা বৃহত্তর জল প্রকল্প চালু করতে চলছে। আগামী এপ্রিল মাস থেকে পাইপ লাইনের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাবে পানীয়জল।
এমটাই আশ্বাস দিয়েছেন পৌর সভার চেয়ারম্যান স্বপন সাহা। ডুয়ার্সের এক গুরুত্বপূর্ণ শহর মালবাজার। একটা সময় ছিল যখন শহরের মানুষ বাড়ির কুয়োর জল যাবতীয় কাজে ব্যবহার করতেন। গত নয়ের দশকে শহরে শুরু হয় পাইপ লাইনের মাধ্যমে জল সরবরাহের কাজ। সকাল ও বিকাল মিলতে থাকে টাইম কলের জল।  গত এক দশকের বেশি সময় শহরে শুখার মরসুমে বিশেষ করে ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসে শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে কুয়োর জল শুখিয়ে যাচ্ছে।
পাইপ লাইনের জলের প্রবাহ মাত্রাও কমে যায়। এতে শহরবাসীর সমস্যার সৃষ্টি হয়। সমস্যা মেটাতে পৌর সভা প্রতিটি ওয়ার্ডে নল কুপ খনন করেছে।তাতেও সমস্যা মেটেনি। চলতি বছর ফেব্রুয়ারির শুরুতেই শহরের ১,২,৩,১০ নম্বর ওয়ার্ডের কুয়োর জল শুখিয়ে তলানিতে এসে গেছে। ১ নম্বর ওয়ার্ডের আদর্শ কলোনির রীতা সরকার জানান, তার বাড়ির কুয়োর জল শুখিয়ে গেছে।টাইম কলের জল ধরে রাখতে হচ্ছে। ফেব্রুয়ারির শেষে এই সমস্যা আরও বাড়বে বলে আশংকা করা হচ্ছে।
এই রকম পরিবেশে শহরবাসীকে আশার কথা শুনিয়েছেন চেয়ারম্যান স্বপন সাহা। বৃহস্পতিবার তিনি জানান, আমাদের বৃহত্তর প্রকল্পের কাজ প্রায় ৭০ শতাংশ শেষ হয়েছে। আগামী দুই মাসে বাকি কাজ হয়ে যাবে। এপ্রিল থেকে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাবে পানীয়জলের লাইন। তখন আর সমস্যা থাকবে না”। পৌরসভার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ দিয়েছেন অনেকে।

Leave a Comment