মানুষের কর্মকাণ্ডের জন্যই গরমের তীব্রতা বাড়ছে, তাই পাখিদের জন্য জল রাখতে মানুষকেই অনুরোধ খুদে ছাত্রীর

#রায়গঞ্জঃ প্রতিবছরই বিশ্ব জুড়ে তাপমাত্রা বাড়ছে। এতে মানব জীবন যেমন অসহায় হয়ে উঠছে, তেমনি পশুপাখির জীবন যাপন ভীষণ কষ্টকর হয়ে উঠছে। তাই ছাদে পাখিদের জন্য খাওয়ার জল রেখে অন্যদেরকেও জল রাখতে অনুরোধ করছে রায়গঞ্জ গার্লস স্কুলের খুদে ছাত্রী সুইটি ঘোষ। সে শুধু নিজে জল রাখেনি, পরিবারের বাবা, মা কে ছোট ছোট পাত্রে জল নিয়ে ছাদে রাখতে বাধ্য করেছে। তার কথায়, আমি বিশ্ব উষ্ণায়ন শব্দটি স্কুলের শিক্ষিকাদের মুখে শুনেছি।

মানুষের কর্মকাণ্ডের ফলে দূষণ বাড়ছে। বরফ গলছে, তাপমাত্রা বাড়ছে। মানুষের এই অপরিনামদর্শী কর্মকাণ্ডের ফলাফল ভোগ করতে হচ্ছে পশু পাখিদের। তাই আমাদেরই উচিত, সমস্ত পশু পাখির পাশে দাঁড়ানো। ওদের বেঁচে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া। তাই আমি নিজে বাড়ির ছাদে পাখিদের পান করার জন্য জল রাখছি। এছাড়াও বাবা, মা কেও জল রাখার জন্য অনুরোধ করেছি। সুইটির অনুরোধ ফেলতে পারে নি তার বাবা কল্যান ও মা সম্পা। মেয়ের দেখানো পথে তারাও বিগত ৩ বছর ধরে ছাদে পাখিদের জন্য জল রাখেন।

রায়গঞ্জ গার্লস স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী সুইটির এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন পরিবেশ চিন্তক শঙ্কর ধর। তিনি বলেন, শুনেছি বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে সুইটি এই কাজ করছে। ও আমাদের কাছে উদাহরণ তৈরি করেছে। যেভাবে ডোবা, পুকুর শুকিয়ে খটখটে হয়ে গেছে, আমরা সবাই যদি প্রতিদিন ছাদে জল রাখি, তাহলে পাখিরা বাঁচবে।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা