‘সিএএ যদি মাছের মুড়োটা হয় তবে ল্যাজা হলো এনআরসি’ হেমতাবাদে গর্জে উঠলেন মমতা

#শুভজিৎ দাস, রায়গঞ্জ: লোকসভা ভোটের দিন যত এগিয়ে আসছে, প্রচারের উত্তপ্তই বাড়ছে বাংলা জুড়ে। জেলায় জেলায় প্রচারে বেরিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জলপাইগুড়ি আলিপুরদুয়ারের পর এদিন তিনি উত্তর দিনাজপুর জেলায় হেমতাবাদে নির্বাচনী জনসভা করেন রায়গঞ্জ লোকসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যানী সমর্থনে। হেমতাবাদ এর থানা ময়দানে আয়োজিত এই সভায় সমস্ত জেলা তৃণমূল নেতৃত্বকে সঙ্গে নিয়ে সরাসরি আক্রমণ করলেন কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, ‘সত্যি যদি মোদীবাবু জেতার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হন তবে কেন আমাদের লোকেদের গ্রেপ্তার করছেন। কেন আমাদের ব্লক সভাপতি, বুথ সভাপতি ও এজেন্টদের গ্রেপ্তার করছেন। আপনি ভাবছেন, গদ্দার বলে দিল, এদের গ্রেপ্তার করে নিলে বাক্স ভরে যাবে। এই করে তৃণমূলকে রোখা যাবে না।’

তিনি আরো অভিযোগ করেন, কেন্দ্রীয় সংস্থা দিয়ে বেছে বেছে তৃণমূল কর্মীদের হেনস্থা করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, ‘সিপিএমের কোনও নেতা নেতা অ্যারেস্ট হয়েছে? এরা ৩৪ বছর খুন করে জ্বালিয়ে গেছে। কংগ্রেসের জোড়া মার্ডার করা নেতারা অ্যারেস্ট হয়েছে? হয়নি। যত রাগ তৃণমূল কংগ্রেসের উপরে।’

মুখ্যমন্ত্রী এদিন হুমকির সুরে বলেন ‘আমাদের কর্মীদের যখন গ্রেপ্তার করে নেবে, ওই কর্মীর মা- বোনেরা এজেন্ট হয়ে বসবে। একটাও ভোট যাতে বিজেপির বাক্সে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন।’
এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে সিএএ-এনআরসি প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন সিএএ যদি মাছের মুড়োটা হয় তবে ল্যাজা হলো এনআরসি।’

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা