যাদবপুরের মেধাবী ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠিত হলো

#মালবাজার: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী রেনেসাঁ দাসের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করলো বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।মঙ্গলবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মঞ্জুস্নেন বসু ফোনে জানান, রেনেসাঁ দাসের অবিভাবকের করা অভিযোগের ভিত্তিতে আজ আলোচনা হয়। একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী কাল থেকে কাজ শুরু করবে তদন্ত কমিটি। আমি নিজেও কমিটিতে আছি।তদন্তের পর কি ফলাফল হয় পরবর্তীতে জানিয়ে দেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের দৃষ্টিহীন মেধাবী ছাত্রী রেনেসাঁ দাসের গত ১৮ জানুয়ারি মালবাজার শহরের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের রামকৃষ্ণ কলোনি স্থিত দাদু মদন দাসের বাড়িতে অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছাঁয়া নেমে আসে।পরে গত ২৫ জানুয়ারি রেনেসাঁর বাবা বিশ্বজিৎ দাস ও মা বর্নালী দাস মাল থানা ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তাদের অভিযোগের আঙুল ছিল স্নাতকোত্তরের বিভাগের দৃষ্টিহীন ছাত্র সুরজ ঝাঁ এবং গবেষক দৃষ্টিহীন ছাত্র পাপ্পুসোনা গান্ধীর বিরুদ্ধে।
এনিয়ে রেনেসাঁ দাসের মা বর্নালী দাস জানান, প্রথম দিকে রেনেসাঁর অ্যাকাউন্ট না থাকায় ওই দুই সিনিয়রদের কাছে টাকা পাঠাতাম। পরে জানতে পারি টাকা সব সময় মেয়ের কাছে যেত না। ওই দুই সিনিয়র মেয়ের উপর মানসিক ও শারীরিক ভাবে অত্যাচার করতো। জোর করে নেশা করাতো। আমরা জানতে পেরে বাড়িতে নিয়ে আসি। ওরাই এই নানান ভাবে প্ররোচিত করতো।
বাবা বিশ্বজিৎ দাস বলেন, আমার মেয়ে আত্মহননের বেছে নিল। অভিযুক্তরা ঘুরে বেরাচ্ছে। জানাগেছে, মঙ্গলবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অভিযোগের ভিত্তিতে বৈঠক করেন। উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার, ডিন অফ স্টুডেন্ট ও অন্যান্য আধিকারিকরা।
বৈঠক শেষে রেজিস্ট্রার জানান, তদন্ত কমিটি গঠন হয়েছে। রিপোর্ট এলে জানিয়ে দেওয়া হবে।
এনিয়ে রেনেসাঁর বাবা জানান, আমরা চাই দোষীরা যেন শাস্তি পায়। ভবিষ্যতে যেন এরকম ঘটনা না ঘটে।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা