চিতাবাঘের আক্রমণে হুলুস্থলুস কান্ড মাল ব্লকের বিভিন্ন এলাকায়

#মালবাজার: চিতাবাঘ নিয়ে দুশ্চিন্তা দুশ্চিন্তা বাড়ছেই। মাল ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় সোমবার চিতা বাঘের আক্রমণের আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। নেপুচাপুর চা বাগানের দুজন চা শ্রমিক জখম হয়েছেন। তেশিমলা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২ নম্বর ঘুমটি এলাকায় চিতাবাঘের আক্রমণে দুটি গোরুর প্রাণ গিয়েছে। বেদ ডামডিম গ্রাম পঞ্চায়েতের বেতগুড়ি চা বাগানের গুদাম লাইনে চিতাবাঘ শাবক দেখতে  পাওয়াতে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বন্যপ্রাণ বিভাগের সমস্ত এলাকাতেই নজর দাড়ি রেখেছে।
লোকসভা ভোটের প্রাক্কালে হঠাৎ বিভিন্ন এলাকায় চিতাবাঘের উপদ্রব বাড়াতে দুশ্চিন্তা চরমে । চিতা বাঘ নিয়ে নেপুচাপুড় চা বাগানের সোমবার সকাল থেকে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে ।শ্রমিকেরা তখন চা পাতা তোলা এবং পরিচর্যার কাজ করছিলেন। এই সময় গুদাম লাইনের পুরুষ চা শ্রমিক দূর্গা লোহার (২৮) চিতা বাঘের আক্রমণের মুখে পড়েন। দুর্গা বলেন আমি বাগানে পরিচর্যার কাজ করছিলাম। হঠাৎ করেই আমার উপর চিতাবাঘ ঝাঁপ দেয়। মুখে থাবা বসায়। কোনক্রমে প্রাণে বেঁচেছি। ঘটনাটি বাগানের ৫৫ নম্বর সেকশনের।
অন্যদিকে, ২৬ নম্বর সেকশনে মহিলা চা শ্রমিকেরা কাজ করছিলেন। সে সময় হঠাৎ করেই আরেল একটি চিতা বাঘ অমৃতা ওরাও (২৩) নামে এক চা শ্রমিকের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। দুজনকেই আহত অবস্থায় চিকিৎসার জন্য মাল বাজারে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আনা হয়েছে। অন্যদিকে, তেসিমলা গ্রাম পঞ্চায়েতের মাল ব্লকেরই  তেসিমলা গ্রাম পঞ্চায়েতের দুই নম্বর ঘুমটিতে চিতা বাঘের হামলায় দুটি গোরু মারা গেছে। রবি ও সোমবার ঘটনাগুলি ঘটেছে। এলাকাতে ছোট চা বাগান আছে। গ্রামবাসীরা আতঙ্কে রয়েছেন।মঙ্গলবার  বেতগুড়ি চা বাগানের গুদাম লাইনেও দুটি চিতা বাঘের শাবককে দেখতে পাওয়া যায়।
এতেও চাঞ্চল্য তৈরি হয়। মালবাজার বন্যপ্রাণ স্কোয়াডের আধিকারিকরা সার্বিক বিষয় নিয়ে কোন মন্তব্য করেননি। তারা ধারাবাহিকভাবেই সমস্ত এলাকায় নজরদারি রেখেছেন। বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে চা বাগানে কাজের শুরুর সময় সতর্ক থাকতে হবে। পটকা ফাটিয়ে আওয়াজ করে কাজ শুরু করা জরুরী। সকল চা শ্রমিকেরা একযোগে একদিক থেকেই কাজ শুরু করাই শ্রেয়। নেপুচাপুড় চা বাগানে চিতাবাঘ ধরতে একটি খাঁচাও বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে পরিবেশ প্রেমীরাও।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা