ওয়াশাবাড়িতে চিতাবাঘের আতংক খাঁচা বসানোর দাবী স্থানীয়দের

#মালবাজার: ওয়াশাবাড়ি চা বাগানে চিতাবাঘের হামলা বেড়েছে। আতংকে ভুগছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বনববিভাগের কাছে খাঁচা পাতার দাবি জানিয়েছে স্থানীয়রা। মাল ব্লকের বাগরাকোট গ্রাম পঞ্চায়েতের এক প্রত্যন্ত এলাকা ওয়াশাবাড়ি চাবাগান। উত্তরে রয়েছে কালিম্পং জেলার পাহাড়ি এলাকা। পাশেই রয়েছে মংপং বনাঞ্চল। এছাড়া চা বাগানের ঝোপঝাড় তো রয়েছে।
এই রকম পরিবেশে বসতি গেড়েছে চিতাবাঘ। মাঝেমধ্যে হানা দিচ্ছে চাবাগানের শ্রমিক মহল্লায়। রাতে  শ্রমিকদের গোয়ালঘরে হানা দিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বাছুর, ছাগল। শুধু রাতে নয়, কোন সময় দিনে মাঠে চড়তে থাকা ছাগল টেনে নিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, খাদ্যের সন্ধানে রাত হলেই চলে আসছে শ্রমিক মহল্লায়।
দুই দিন আগে পদম লামা নামের এক ব্যাক্তির দড়ি বাধা অবস্থায় থাকা ছাগল দিনের বেলা টেনে নিয়ে যায়। লোকজন সন্ধ্যার পর বাসিন্দারা বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছে। বাসিন্দারা আরও জানান, আমরা গবাদিপশু পালন করে রোজগার হয়। এভাবে ক্ষতি হলে সমস্যায় পড়তে হবে। বনবিভাগের উচিত খাঁচা পেতে চিতাবাঘ ধরুক। না হলে সমস্যা বাড়বে।
এনিয়ে মাল বন্যপ্রান স্কোয়ার্ডের সুত্রে জানাগেছে, আবেদন করলে খাঁচা পাতা হবে। তবে বিভিন্ন চাবাগানে চিতাবাঘের উপদ্রব বেড়েছে। মানুষকে সতর্ক থাকতে হবে। তবে পরিবেশ প্রেমীদের অভিমত, চিতাবাঘ বন নয়, চাবাগানের ঝোপেঝাড়ে থাকতে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে। আহার সুলভ থাকায় চাবাগান এলাকার আশেপাশে থাকছে।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা