চেল নদীর বুকে খাদান বন্ধের দাবীতে বিডিওকে স্মারকলিপি দিল মানাবাড়ির শ্রমিকরা

#মালবাজার: ডুয়ার্সের এক পরিচিত নদীর নাম চেল। কালিম্পং জেলার পাহাড়ি এলাকা থেকে উৎপন্ন হয়ে সমতলের ওদলাবাড়ি, রাজাডাঙ্গা, ক্রান্তি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়ে তিস্তায় মিসেছে এই নদী। পাহাড়ি এলাকা থেকে উৎপন্ন হওয়ার কারনে প্রতি বছর বর্ষার সময় হাজার হাজার টন বালি পাথর বয়ে আনে এই। এজন্য নির্মাণ কার্যের অন্যতম উপাদান বালিপাথরের ভান্ডার এই নদী। এজন্যই প্রতিদিন বেশকিছু জেসিবি মেসিন এক নদীর বুকে অবৈধভাবে খনন করে বালিপাথর উত্তলন করে।
দশ কিম্বা ১২ চাকার ডাম্পারে বোঝাই হয়ে সেই বালি পাথর  চলে যায় উত্তর বঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে। এমনকি পাশের বাংলাদেশেও রপ্তানি হয়। এজন্যই দিনরাত খনন কাজ চলে। এতেই সমস্যায় পড়েছে নদীর পাশে থাকা মানাবাড়ি চাবাগানের শ্রমিকরা। শুক্রবার চাবাগানের বেশকিছু মহিলা মাল বিডিও অফিসে এসে জেসিবি বন্ধের দাবী জানিয়ে স্মারক লিপি দেন।  তাদের অভিযোগ চেল ও ঘিস নদীতে এরকম খননের ফলে নদীর বুকে খাদ সৃষ্টি হয়েছে। জলের স্তর নেমে গেছে।
চাবাগানের গাছপালা শুখিয়ে যাচ্ছে। কুয়ো শুখিয়ে গেছে।তাই তারা খনন কাজ বন্ধের দাবী ও পানীয়জলের সমস্যা মেটাতে স্মারক লিপি দিয়েছেন। জয়ন্তী ওরাও, পুর্নিমা ওঁরাওরা জানান, এই খননের জন্য আমাদের শ্রমিক মহল্লায় জল শুখিয়ে গেছে। মাঝে মাঝে পানীয়জল থাকেনা। আমরা চাই এই খনন বন্ধ হোক। আগের পরিবেশ ফিরে আসুক। এনিয়ে মালের বিডিও রশ্মিদীপ্ত বিশ্বাস বলেন, সমস্যা কথা ওনারা জানিয়েছেন। ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা