অবশেষে নিজের ‘বিজেপি বিধায়ক’ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণী

#শুভজিৎ দাস, রায়গঞ্জ: অবশেষে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন রায়গঞ্জের বিজেপি বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যানী। বুধবার কলকাতায় বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ইস্তফাপত্র দেন তিনি। স্পিকার সেই ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন বলে সূত্র মারফত জানা গেছে।

বর্ণময় রাজনৈতিক চরিত্র কৃষ্ণ কল্যানী ২০২১ সালে সরাসরি রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য রাজনীতিতে পা রেখেই ওই বছরই বিধানসভা ভোটে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিধায়ক হিসাবে নির্বাচিত হন। যদিও এরপর বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে তা দূরত্ব বাড়তে থাকে। একসময় রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরীর সঙ্গে তার বিবাদ চরমে ওঠে।পরবর্তীতে ছয়মাসের মধ্যেই ২৭শে অক্টোবর ২০২১ তিনি তৃণমূলে যোগ দেন এবং সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মনোনীত হন।

কৃষ্ণ কল্যাণীর এই ‘দল বদল’ রায়গঞ্জ তথা জেলার রাজনীতিতে সৃষ্টি করে নতুন বিতর্ক। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জ কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী মনোনীত হওয়ার পরে সেই বিতর্ক যেন মাথাচাড়া দেয়। কিন্তু বুধবার বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর সেই বিতর্কের খানিকটা হলেও ইতি ঘটলো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

যদিও তৃণমূল প্রার্থী নিজে এসব বিতর্কে কান দিতে রাজি নন। বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েই নিজের ‘এক্স-হ্যান্ডেল ‘ একাউন্টে তিনি জানান,
‘আমি মনে করি আগামী লড়াই আমার কাছে মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই এবং এই লড়াই আমি জিততে চাই সাধারণ মানুষের সমর্থনে কোন সাংবিধানিক পদে আসীন থেকে নয়।’

যদিও যেহেতু তিনি বিজেপির বিধায়ক হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন, সেই কারণে তৃণমূলের প্রার্থী হিসাবে দাঁড়াতে গেলে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিতেই হতে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা