শ্রমিক আন্দোলনের চাপে মজুরি দেবে বলে জানালো সাইলি চাবাগান কর্তৃপক্ষ

#মালবাজার: টানা দুই দিন বিক্ষোভ ও ট্রেড ইউনিয়নের যৌথ মঞ্চের আন্দোলনের চাপে নতিস্বীকার করলো মাল ব্লকের সাইলী চা বাগান কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার বাগান কর্তৃপক্ষ নোটিশ জারি করে বকেয়া মিটিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে।  আশ্বাস বাণীতে আশার আলো দেখলেও, লিখিত কোনো নোটিশের ওপর সম্পূর্ণ ভরসা নেই শ্রমিকদের। শ্রমিকদের অভিযোগ, পূজোর বোনাস নিয়েও এমন লিখিত নির্দেশিকা দিয়েছিলো ম্যানেজার, এখনো সেই টাকা সম্পূর্ণ পায় নি শ্রমিকরা।
শ্রমিকদের প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার গ্র্যাচুয়িটি বকেয়া। বকেয়া মজুরি নিয়ে আবার সেই নোটিশ দেখে সংশয়ে ১৫০০ শ্রমিক। শুক্রবার সকালে বাগানের অফিসের সামনে আন্দোলনে বসে শ্রমিকরা। কিছু সময়ের জন্য শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে পরে। ঘটনাস্থলে পৌঁছান মাল থানার আইসি সমীর তামাং সহ পুলিশ বাহিনী। বাগান কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, জানুয়ারি মাসের বকেয়া মজুরি দুই ভাগে ৫ ই ও ৭ ই ফেব্রুয়ারি মিটিয়ে দেওয়া হবে, এবং সেটা লিখিত ভাবে শ্রমিকদের জানানো হয়েছে।
তবে এই লিখিত নোটিশে সন্তুষ্ট নয় কেউ, আগেও অনেক আশ্বাস দিয়ে সেটার কথা রাখে নি বাগান কর্তৃপক্ষ। ৫ ই ফেব্রুয়ারি তলব না পেলে বৃহত্তর আন্দোলনে শামিল হবে শ্রমিকরা। ট্রেড ইউনিয়ন নেতা সুভাষ থাপা বলেন, ম্যানেজারের লিখিত নোটিশে বিশ্বাস করে আমরা আগামী কাল থেকে কাজে যোগ দেবো, তবে সোমবার বকেয়া মজুরি না পেলে আমরা আবার কর্মবিরতি ঘোষণা করবো।
বাগানের ম্যানেজার সুনীল কুমার আগরওয়াল বলেন, মালিকের নির্দেশে আমি বকেয়া মেটানোর দুটো তারিখ দিয়েছি। মালবাজারের সহকারী লেবার কমিশনার প্রণব কুমার দাস বলেন, সমস্যা আরও জটিল হওয়ার আগেই শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি মিটিয়ে দেওয়া উচিত।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা