চিকিৎসক হতে চায় আইসিএসসি রাজ্যে সাম্ভাব্য  টপার মালবাজারের স্বপ্নজিৎ

#মালবাজার: ভবিষ্যতে  চিকিৎসক হতে চায় দশম শ্রেণির আইসিএসসি পরীক্ষার রাজ্য সাম্ভাব্য টপার মালবাজারের স্বপ্নজিৎ বিশ্বাস। সেই স্বপ্ন পূরনের লক্ষ্যে প্রথম ধাপ শুধুমাত্র স-সম্মানেই নয়,সিআইএসসিই পরিচালিত দশম শ্রেণির আইসিএসসি পরীক্ষায় সাড়া জাগানো ফলাফল করে উত্তীর্ণ হলো মালবাজারের ছেলে  ওদলাবাড়ি ডন বসকো স্কুলের ছাত্র স্বপ্নজিৎ বিশ্বাস।আজই প্রকাশিত হয়েছে আইসিএসসি বোর্ডের দশম শ্রেণির ফলাফল।
সেই পরীক্ষায় ৯৯.৪০ শতাংশ নম্বর পেয়েছে স্বপ্নজিত। ডন বসকো স্কুলের প্রিন্সিপাল ফাদার টিজো থমাসের দাবি অনুযায়ী, স্বপ্নজিত রাজ্যে সম্ভাব্য প্রথম হওয়ার পাশাপাশি সারাদেশে সম্ভাব্য তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে। অত্যন্ত স্মার্ট স্বপ্নজিতের এহেন সাফল্যে তার স্কুল তো বটেই, মালবাজার পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর কলোনির বাড়িতেও আনন্দের জোয়ার।
স্কুল শিক্ষক বাবা-মা সুব্রত বিশ্বাস ও জয়শ্রী কর’ র একমাত্র সন্তান স্বপ্নজিত। কিন্ডারগার্টেন থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ডন বসকো স্কুলে পড়াশোনা করেছে সে।আগাগোড়া প্রথম হয়ে এসেছে সে। এদিন পরীক্ষার রেজাল্ট জানার পর প্রথম প্রতিক্রিয়ায় উত্তরবঙ্গ সংবাদের কাছে স্বপ্নজিত বলে,” আমার ধারণা ছিল ৯৯.২ শতাংশ পাব, সেখানে ৯৯.৪ শতাংশ পেয়েছি। আমার এই সাফল্যের মূল কৃতিত্ব আমার মা-বাবা  এবং অবশ্যই আমার স্কুলের শিক্ষকরা।”এখন পর্যন্ত  মূল বিষয়গুলোর জন্য  কোনও প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়েনি সে।
বাড়িতে বাবা- মা তাকে পড়াতেন।কম্পিউটার পড়িয়েছেন গৌতম বিশ্বাস।কি ভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে জানতে চাইলে স্বপ্নজিত বলে,”টেক্সট বুক গুলো ভালো করে পড়েছি। একইসাথে ক্লাসের পড়া নিয়মিত ফলো করার পাশাপাশি বোর্ডের বিগত বছরগুলোর প্রশ্নপত্রগুলো বারবার দেখেছি। ঘড়িধরে পড়াশোনার বাঁধাধরা কোনও রুটিন  স্বপ্নজিত ফলো করেনি।পড়াশোনার বাইরে ক্রিকেট,ফুটবলও ওর আগ্রহ। এম এস ধোনির অসম্ভব ভক্ত স্বপ্নজিত আবার গিটার বাজানো,ছবি আঁকাতেও সিদ্ধহস্ত।
অন্যদিকে,স্বপ্নজিতের  রেজাল্ট দেখে অত্যন্ত খুশি ডন বসকো স্কুলের প্রিন্সিপাল ফাদার টিজো থমাস। এদিন ফাদার টিজো থমাস বলেন,স্বপ্নজিত যে ভালো ফল করবে তা প্রত্যাশিতই ছিলো।
কিন্তু তাই বলে রাজ্যে সম্ভাব্য প্রথম এবং সারাদেশে সম্ভাব্য তৃতীয় হবে এটা ভাবিনি।স্কুল কতৃপক্ষ তার এই সাফল্যে অসম্ভব খুশি।স্বপ্নজিতের পাশাপাশি স্কুলের ফলাফলও এবারে নজরকাড়া।মোট ৯৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সকলেই উত্তীর্ণ হয়েছে। ৯০% ওপর নম্বর পেয়েছে ১১ জন।৮০% ওপর নম্বর পেয়েছে ৩০ জন, ৭০% ওপর নম্বর পেয়েছে ২৮ জন এবং ৬% ওপর নম্বর পেয়েছে ২৯ জন।
News Britant
Author: News Britant

Leave a Comment

Choose অবস্থা